চিকিৎসা

শুকনো ঘাস ছিঁড়ে ছিঁড়ে কাটানো গেল বহুক্ষণ। এইবার ঘাসের পাতা আর শেকড়
ছুঁড়ে দেব হাওয়ায়। ধূলিমলিন মুখটি মেলে ধরবো ডাক্তারের সামনে; বিষাদের জের
টানা ধীরতায় শুকনো ঘাস আর ছেঁড়া শেকড়ের গল্প শোনাবো তাকে। এভাবেই ফুটে
উঠবে আমার পচনশীলতার জটিল প্রিন্ট। আমার দারুন সাদা চোখে নির্ভেজাল
অ্যালকোহল ঢেলে দাও ডাক্তার, তারপর লম্পট চাঁদের রাতে আমি চোখ গেল পাখি
হয়ে যাব। চাঁদে হেলান দিয়ে যখন পরীরা গান গাইবে, মসলিন হাওয়ায় ভেসে বেড়াবে
অজস্র স্নিগ্দ্ধ সুরের ভিখিরি তখন আমি চোখ না থাকার অজুহাতে তলিয়ে যেতে পারবো
নিজস্ব অতলে দৃশ্যহীন।

[page]
চোরাবালি

চোরাবালি থেকে যারা উঠে আসে তারা নয় মৃতের সমান-
হৃদয় মথিত চুল-আসমানে বিম্বিত আমাদের বুক।
একঘেয়ে সুখে যারা ক্ষয়ে গেল,ক্ষীণ হয়ে থেকে গেল
নেই এই জীবনে তাদের মৃত্যু নেই নীল বজ্রপাতে; জীবনের
কাছে সাক্ষাতে বলার যত কথা ছিল- যে কথা গোপন-
নিয়ন্ত্রিত বিস্ফোরণে আনন্দের মত- সব চাপা পড়ে গেল
নষ্ট সময়ের স্তুপে। আগুনের শ্যেন রুপে, মুগ্দ্ধতায় অবাধ
দহন জানা হলনা তাদের। চপলের হাতছানি আসমানি রঙের
বৃন্তে ঘূর্ণমান পৃথিবীর বল। সেই শক্তি স্ববিরোধী আলেয়ার মত
তোমাকে ব্যপৃত রাখে অন্বেষনে,উঠে আসে বালিবাঁধ,বালির বিধান-
চোরাবালি থেকে তুমি উঠে এলে,তুমি নও মৃতের সমান।

[page]
একটি যৌন গান

একটা অতিকায় তাঁবুর মধ্যে আটকে পড়েছে
একটা বাঁশী। বাইরে ঝড় উঠেছে।
ভেতরে একটু হাওয়া ঢুকলেই সে বলে উঠবে-


সাপ                      খোলসে খোলসে রাখা শীতঘুম, স্নেহের সঞ্চয়


রেজগি                      খুচরো সংসর্গের পাপ,মন্দিরে দেহ মন্দিরে


গাধা                      তুলোর মতন প্রেম ফুলে ওঠে জলমগ্ন হলে


মা                      তাঁহার দেওয়া মোটা কাঁকড় আমার প্রেমের বালাই ভাই


পাষন্ড                      ধর্ষনের পরেই ধান গ্রহনযোগ্য হয়


ধাপ্পা                      'ভালোবাসা পেলে আমি' একমুখী ফোঁড়ার মত’


নিকিরি                      আজানুলম্বিত জিভ,জীবে প্রেম,প্রেমে প্রসারিত


সাফাই                      'I can check everything but temptation'