এক ভাঁড় চা

আজকেও রাস্তায় হারিয়ে গেছি আমি
রোড সেন্স চিরকালই আমার অত্যন্ত খারাপ।
কপালে বিন্দু বিন্দু ঘাম জমছে
একটু নারভাস লাগছে কি ?
যেন হারিয়ে গেলে কারো কোন ক্ষতি হয়ে যাবে
বড় বড় বিজ্ঞাপন পড়ে যাবে
খবরের কাগজের নিরুদ্দেশ কলামে ।
ঘরবার করবে কেউ,
ছেড়ে আসা জামা কাপড়ে আমার গন্ধ শুঁকে
কেঁদে উঠবে হাউমাউ।
আসলে এসব তো কিছুই ঘটবে না
পা দুটো টন টন করছে বোলে
ভাবছি খানিক দাঁড়িয়ে
একটা সিগারেট ধরাই।
এক ভাঁড় চাও খাওয়া যেতে পারে।


অবাধ্যতা

বাঁ চোখটা খেলছে আমার সাথে
চোর পুলিস চোর ফুলিস
আর ফুসলিয়ে আনছে আজব সব রক্তের ছায়া ।
ওর ওই অবাধ্যতা সামলানো যাচ্ছে না কিছুতেই
এমনও নয় যে সামলাতে চাইছি খুব
মাঝে মাঝে ডেকে বলছি অবস্য
কি হচ্ছে এসব হে
কে তোমাকে পেইন্টার হওয়ার উস্কানি দিলো ?

এই জেন পেইন্টিং এর চর্চা তো
অনেকদিন আগে করতাম আমি
তুমি কবে শিখে নিয়েছ চুপি চুপি
জানতে পারিনি তো !
আর এখন জলে ভাসিয়ে দিচ্ছ রঙ
আর রঙের ধম্ম।
কেউ জানেনা সে কোনদিকে যাবে
তুমিও জাননা
রঙও কি সবটুকু জানে
ভাসতে ভাসতে কদ্দুর
কোন পাহাড়ের মেঘে কোন কুয়াসার ভেতর
গাছ হয়ে পাখি হয়ে ঢেউ হয়ে হয়ে
মানুষ খুঁজবে
শুরুর জন্য একটা সংক্রান্তির দরকার হবে আমাদের।