যতবার পুনর্জন্ম চেয়েছি, কেউ সেখানে বসিয়ে দিয়েছে যতিচিহ্ন। আর এক নৌযান ভর্তি সন্ধে তার অবাক আলো নিয়ে জীবনের অক্ষরেখায় রেখেছে অলিভ গন্ধ। আমি কি জানি না, এই ভারসাম্যহীনতার নাম ফুরিয়ে যাওয়া?

নগ্নতার রেখা ধরে হেঁটে চল। ধর আমাদের ঘরবাড়ি, ভেসে যাচ্ছে ওই উত্তরে হাওয়া বদলের দেশে। স্মৃতির পাতারা ক্রমাগত বুনছে লুকোছাপা অন্ধকার, ছিটছিট স্তব্ধতা মাখা মোমের মস্ত আকাশ জুড়ে একটা জলরঙা ফিঙে লেজ নাচাচ্ছে আহ্লাদে।

এই অনুষঙ্গে বসে এবারও তুমি ভাববে, দেবদারুর বিক্ষিপ্ত হৃদয়?